..:: বিজ্ঞাপন ::..

অমরপুর, ১৫ অক্টোবর।। তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে অমরপুর টাউন হলে গত ১২ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে ৭ দিনব্যাপী বিহু নৃত্যের কর্মশালা। অমরপুর টাউন হলে আয়োজিত এই কর্মশালার উদ্বোধন করেন অমরপুর নগর পঞ্চায়েতের চেয়ারপার্সন তরুণ চক্রবর্তী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সুদীপ সাহা, মহকুমা তথ্য ও সাংস্কৃতিক আধিকারিক সহ বিশিষ্ট জনেরা। কর্মশালায় মহকুমার ১০টি বিদ্যালয়ের ৫০ জন ছাত্রছাত্রী অংশ গ্রহণ করে। প্রশিক্ষণার্থী ছাত্র ছাত্রীদের বিহু নৃত্যের প্রশিক্ষণ দেবেন আসাম থেকে আগত বিশিষ্ট নৃত্য শিল্পী জিনা রাজকুমারী গোস্বামী। উল্লেখ্য, এই কর্মশালা চলবে আগামী ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত।
বিশালগড়, ১৫ অক্টোবর।। কুমার শচীন দেববর্মণের জন্ম জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষ্যে আগামী ২৩ অক্টোবর বিকেলে বিশালগড় বাজার সংলগ্ন বোধন মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বিশালগড় মহকুমা তথ্য ও সংস্কৃতি কার্যালয় এবং বিশালগড় পুর পরিষদ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে কুমার শচীন দেববর্মণে সংগীত জীবনের উপর আলোচনা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। মহকুমা ভিত্তিক এই অনুষ্ঠান সফল করার লক্ষ্যে সম্প্রতি বিশালগড় পুর পরিষদের সভাগৃহে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশালগড় পুর পরিষদের চেয়ারপার্সন পূর্ণিমা চক্রবর্তী সভাপতিত্ব করেন। ভাইস চেয়ারপার্সন পার্থ প্রতিম মজুমদার, সদস্য প্রফুল্ল দেবনাথ, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংস্থার প্রতিনিধিগণ এবং মহকুমা তথ্য ও সংস্কৃতি কার্যালয়ের আধিকারিক সভায় উপস্থিত ছিলেন।
কৈলাসহর, ১৫ অক্টোবর।। ঊনকোটি জেলাশাসক প্রমথ রঞ্জন ভট্টাচার্য ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে সীমান্ত সংলগ্ন ৫০০ মিটার এলাকায় সি আর পি সি-র ১৪৪ (৩) ধারা জারী করেছেন। এই আদেশ অনুযায়ী কোন ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গ সীমান্ত এলাকায় রাত ১০টা থেকে পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত চলাফেরা করতে পারবেন না। ঐ সময়ে চলাফেরা করতে হলে পুলিশ, সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বা মহকুমা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছ থেকে অনুমতি পত্র নিতে হবে এবং বাধ্যতামূলক ভাবে সঙ্গে লন্ঠন বা ল্যাম্প রাখতে হবে। এই আদেশ বি এস এফ, টি এস আর, সি আর পি এফ, আসাম রাইফেলস সহ অন্যান্য আইন শৃঙ্খলার কাজে নিযুক্ত ব্যক্তির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবেনা। কৈলাসহর ও কুমারঘাট মহকুমা সহ ইরানী থানার আওতাধীন সীমান্ত এলাকায় এই আদেশ কার্যকরী হবে। এই আদেশ অমান্যকারী ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গ আই পি সি-র ১৮৮ ধারায় অভিযুক্ত হবে। তেব আদেশটি হাসপাতালগামী রোগী ও জরুরী ঔষধ বিক্রেতা ও ক্রেতার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না। এই আদেশ ১০ অক্টোবর, ২০১৭ থেকে কার্যকর হয়েছে এবং ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারী পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।