..:: বিজ্ঞাপন ::..

ওয়েব ডেস্ক, ৩০ এপ্রিল।। ভাঙড়ে নিজের দলেরই বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমূল প্রার্থী আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা। ভাঙড়ের উত্তর গাজিপুরের ঘটনা। এলাকায় তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের অভিযোগ, ৯২ ও ৯৩ নম্বর বুথে গিয়ে ছাপ্পা ভোট দিতে নির্দেশ দেন রেজ্জাক মোল্লা। এমনই অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে রুখে দাঁড়ান তাঁরই দলের কর্মীরা। ঘটনায় আরাবুল ইসলামের বিরুদ্ধে অন্তর্ঘাতের অভিযোগ তুলেছেন রেজ্জাক মোল্লা। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আরাবুল ইসলাম। আরাবুলের দাবি, 'রেজ্জাক মোল্লাই জিতবে ভাঙড়ে।' এছাড়াও ভাঙড়ে ২ নম্বর ব্লকের ৮৮ নম্বর বুথে ঢুকতে গিয়ে বাধা পান তৃণমূল প্রার্থী রেজ্জাক মোল্লা। দলবল নিয়ে বুথে ঢুকতে গেলে তাঁকে ঢোকার অনুমতি দেননি সপারিষদ।
ওয়েব ডেস্ক, ২৫ এপ্রিল।। রাজনীতির রোষানল থেকে রেহাই পেল না তিন বছরের শিশুও। আঘাত পড়ল শিশুর গায়েও। হালিশহরের বারেন্দ্রপল্লীর এই ঘটনায়, হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার দু'জন। মাত্র তিন বছরের শিশুটির বোঝার বয়সও হয়নি, ভোট কী? তবু পড়ে পড়ে মার খেতে হল তাকেও। ভোট দিতে মেয়েকে নিয়ে রবিবার রাতে হালিশহরের ন-নম্বর ওয়ার্ডে বারেন্দ্রপল্লীতে বাপের বাড়িতে আসেন তার মা। শুরুতেই বড় ধাক্কা। অভিযোগ, দফায় দফায় হামলা হয় বাড়িতে। শিশুর দাদু এলাকায় সক্রিয় সিপিএম কর্মী। অভিযোগ, একারণে ভয় দেখাতেই হামলা করে তৃণমূল।
ওয়েব ডেস্ক, ২৫ এপ্রিল।। পঞ্চম দফার ভোটে আক্রান্ত হলেন দুই প্রার্থী। দমদম উত্তরে আক্রান্ত সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য। হামলা হয় তাঁর গাড়িতে। ওই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের দাবি, হামলার অভিযোগ অবান্তর। এদিন বারাকপুরেও আক্রান্ত হন সিপিএম প্রার্থী দেবাশিস ভৌমিক। রক্ত ঝরল পঞ্চম দফার ভোটে। এবার হামলা সরাসরি প্রার্থীর ওপর। আক্রান্ত দমদম উত্তরের সিপিএম প্রার্থী তন্ময় ভট্টাচার্য। বারাকপুরে আক্রান্ত সিপিএম প্রার্থী দেবাশিস ভৌমিক। মারধর করে পরিচয়পত্র কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ।