..:: বিজ্ঞাপন ::..

ওয়েব ডেস্ক, ২৬ মে।। ৪২ জন মন্ত্রীকে নিয়ে আগামিকাল শপথগ্রহণ। দ্বিতীয়বারের জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন মমতা ব্যানার্জি। মমতার সঙ্গেই শপথ নেবেন তাঁর নতুন মন্ত্রিসভার ৪২ জন মন্ত্রী। রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর সঙ্গে দেখা করে আজ মন্ত্রীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা তাঁর হাতে তুলে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি ঘোষণা করেন কে কে থাকছেন তাঁর মন্ত্রিসভায়। এবারের মন্ত্রিসভায় থাকছে অনেক নতুন মুখ। একনজরে দেখে নিন কে কে থাকছেন মন্ত্রীসভায়- মমতা ব্যানার্জি, পার্থ চ্যাটার্জি, সুব্রত মুখার্জি, অমিত মিত্র, মন্টুরাম পাখিরা, ফিরহাদ হাকিম, শোভন চ্যাটার্জি (মেয়র ও মন্ত্রী একসঙ্গে), শুভেন্দু অধিকারী, পূর্ণেন্দু বসু, সাধন পান্ডে, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, শান্তিরাম মাহাত, রেজ্জাক মোল্লা, চূড়ামণি মাহাত, মলয় ঘটক, সৌমেন মহাপাত্র, গৌতম দেব, লক্ষ্মীরতন শুক্লা, গিয়াসউদ্দিন মোল্লা, রাজীব ব্যানার্জি, ইন্দ্রনীল সেন, সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী, স্বপন দেবনাথ, অসীমা পাত্র, শোভনদেব চ্যাটার্জি, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, ব্রাত্য বসু, জাকির হোসেন, বাচ্চু হাঁসদা, অরূপ রায়, অবনী জোয়ারদার, জাভেদ খান, বিনয়কৃষ্ণ বর্মণ, চন্দ্রনাথ সিনহা, আশিস ব্যানার্জি, শশী পাঁজা, উজ্জ্বল বিশ্বাস, তপন দাশগুপ্ত, জেমস কুজুর, সন্ধ্যারানি টুডু, গুলাম রব্বানি। শপথগ্রহণের পর আগামিকাল বিকেল সাড়ে ৪টেয় নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক।
ওয়েব ডেস্ক, ১৯ মে।। একনজরে দেখে নিন আজ ভোট গণনার সবচেয়ে বড় ৫টা খবর। ১) বিপুল ভোটে জয়ী তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জয় নিশ্চিত হতেই বাড়ির বাইরে বেরোলেন। তাঁকে ঘিরে উচ্ছ্বাস সমর্থকদের। ২) আসানসোলের শ্রীপল্লিতে সিপিএম অফিসে আগুন। অভিযোগের আঙুল তৃণমূলের দিকে। অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের। ৩) ৪ হাজার ১৯৮ ভোটে হারলেন মদন মিত্র। ৫ হাজার ভোটে জিতবেন বলে কনফিডেন্ট ছিলেন তিনি। ৪) সাড়ে ১৩ হাজার ভোটে হেরে গেলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। জোড়াসাঁকোতে এগিয়ে থেকেও পরাজিত হলেন রাহুল সিনহা। জিতলেন তৃণমূলের স্মিতা বক্সী। ৫) বড়জোড়ায় পরাজিত শাসকদলের সেলেব প্রার্থী সোহম।
ওয়েব ডেস্ক, ১৯ মে।। মন্ত্রী কৃষ্ণেনন্দু নারায়ণ চৌধুরী। মালাদাহের ইংরেজবাজার বিধানসভা কেন্দ্র থেকে হেরে গেলন এই হেভিয়েট। মন্ত্রী সাবিত্রী মিত্র। মালদাহের মানিকচক বিধানসভাকেন্দ্র থেকে হার। মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। আইনমন্ত্রী হারলেন উত্তর ২৪ পরগণার উত্তর দমদম কেন্দ্র থেকে। নির্ভেদ রায়। তমলুক থেকে হার। পূর্ব মেদিনীপুরে সবকটি আসন তৃণমূলের খাতায়, কেবল খোয়া গেল তমলুক। কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়। সুন্দরবনের ঘরের ছেলে। ২০১১ তেও হেরেছিলেন, এবারও হারলেন। পরপর দু'বার জয়ী হলেন তারকা প্রার্থী দেবশ্রী রায়। অবাক হওয়ার বিশেষ কারণ না থাকলেও, রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের কড়া নজর ছিল প্রান্তিকের এই কেন্দ্রে, বেশির ভাগের প্রত্যাশা ছিল জয় হাসিল করবে বামেরা। তবে ফল ঠিক উল্টো। আর অবশ্যই বলতে হয়, মদন মিত্রের কথা। নিজেও কনফিডেন্ট ছিলেন, '৫০০০ ভোটে জিতবেন'। হারলেনও প্রায় ৫০০০ ভোটেই। ৫০-৫০ চান্স থাকলেও বাংলায় একমাত্র নজির জেল থেকে ভোটে দাঁড়িয়ে, জয়ের রেকর্ড গড়া হল না তাঁর।