..:: বিজ্ঞাপন ::..

সাব্রুম, ১৫ অক্টোবর।। পানীয় জল ও স্বাস্থ্যবিধি দপ্তরের মন্ত্রী রতন ভৌমিকের সভাপতিত্বে গতকাল সাব্রুম ডাকবাংলোয় সাব্রুম মহকুমার পানীয়জল ও স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ক উন্নয়নমূলক কাজের পর্যালোচনা করা হয়। শুখা মরশুমে সাব্রুম মহকুমায় যাতে পানীয় জলের সমস্যা সৃষ্টি না হয় সে বিষয়ে বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়। দপ্তরের মন্ত্রী শ্রী ভৌমিক পানীয় জলের বর্তমান উৎসগুলি সচল রাখা, বিকল উৎসগুলি মেরামত করা, নতুন পানীয় জলের যে সমস্ত প্রকল্পের কাজ চলছে সেগুলির কাজ দ্রুত শেষ করা এবং খনন কাজ শেষ হওয়া প্রকল্পগুলি দ্রুত চালু করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। মাগরুম, কাপতলী, লুধুয়া, হার্বাতলী, বেতাগা, বাগমারা ইত্যাদি উপজাতি অধ্যুষিত এলাকার পানীয় জলের প্রকল্পগুলির কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
আগরতলা, ১৫ অক্টোবর।। দীপাবলি উপলক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার রাজ্যবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এক শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি বলেন, আলোর উৎসব দীপাবলি উপলক্ষ্যে সকল ত্রিপুরাবসীকে আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। অবিশ্বাস, বিদ্বেষ, অসহিষ্ণুতার পরিমন্ডল তৈরির অশুভ প্রয়াস প্রতিহত করে ত্রিপুরার চিরন্তন শান্তি সম্প্রীতি ও সৌভ্রাতৃত্বের ঐতিহ্যকে সুদৃঢ় করতে এই উৎসব সাহায্য করুক। সকলের সম্মিলিত অংশ গ্রহণে দীপাবলি উৎসব আনন্দোজ্জ্বল হয়ে উঠুক।
আগরতলা, ৩ জুলাই।। প্রকৃতির কোলে আমাদের সৃষ্টি এবং প্রকৃতির কোলেই আমরা বেড়ে উঠি। তাই প্রকৃতি আমাদের কাছে মায়ের মতো। মা যদি অসুস্থ হয়, আমরা চিন্তিত হই, উদ্বিগ্ন হই। ঠিক তেমনি প্রকৃতি যদি অসুস্থ হয় আমাদের জীবনে নানা বিপর্যয় নেমে আসে। তাই প্রকৃতিকে সুরক্ষিত রাখার জন্য আমাদের সকলকে দায়িত্ব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। আজ ধর্মনগরের বি বি আই মাঠে আয়োজিত ৬৮তম রাজ্যভিত্তিক বনমহোৎসবের উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার একথা বলেন। বনমহোৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান প্রযুক্তি ও পরিবেশ মন্ত্রী বিজিতা নাথ, বনমন্ত্রী নরেশ চন্দ্র জমাতিয়া। অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, প্রকৃতি আজ নানা ভাবে আক্রান্ত ও অসুস্থ হয়ে পড়ছে। পৃথিবীতে জনসংখ্যা বাড়ছে, দূষণ বাড়ছে, পৃথিবীর উষ্ণতা বাড়ছে, ওজোন স্তর বায়ু মন্ডলের ভারসাম্য রক্ষা করতে পারছে না এবং প্রাণীকুল যারা বনাঞ্চলে বাস করে তারাও বিলুপ্ত হচ্ছে। সব মিলিয়ে পরিবেশে একটা জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তাই পরিবেশকে রক্ষা করতে সরকারী উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারী ভাবে সকলকে দায়িত্ব নিতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এই কাজ করতে না পারলে আমরা ধ্বংসের কিনারায় চলে যাবো।