..:: বিজ্ঞাপন ::..

ওয়েব ডেস্ক, ১৫ অক্টোবর।। বিমানের খাবারের মানের খাবার দেওয়ার ভাবনাচিন্তা করছে রেল। দুটি ট্রেনে তা পরীক্ষামূলকভাবে চালুও করা হয়েছে। তবে রেলের খাবার নিয়ে এখনও অভিযোগের শেষ নেই। এর মধ্যেই বিপত্তি। ভারতের প্রথম সেমি হাইস্পিড ট্রেন তেজস এক্সপ্রেসের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লেন ২৪ যাত্রী। এদের ৩ জনের অবস্থা এতটাই খারাপ যে তাদের আইসিইউতে ভর্তি করতে হয়েছে। রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে রবিবার সকালে কারমালি-মুম্বই তেজস এক্সপ্রেসের ২৯০ যাত্রীকে ব্রেকফাস্ট দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বারোটা নাগাদ অনেকেই বলতে থাকেন তাদের শরীর খারাপ করছে। অনেকেই বমি বমি পাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। ক্রমশ সংখ্যাটা বাড়তে থাকে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে মহারাষ্ট্রের চিপলুন স্টেশনে অসুস্থ যাত্রীদের নামিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অসুস্থ যাত্রীদের মধ্যে ৩ জনকে আইসিইউতে ভর্তি করতে হয়। যাত্রীদের ভেজ ও ননভেজ দুধরনেরই খাবার দেওয়া হয়েছিল। ঠিক কোথা থেকে বিষক্রিয়া হল তা এখনও স্পষ্ট করে জানাতে পারেনি রেল। কিন্তু প্রশ্ন থেকেই গেল, তেজসের মতো একটি এলিট ট্রেনের খাবার খেয়ে যদি ওই অবস্থা হয় তা হলে অন্যান্য ট্রেনের খাবারের অবস্থা কেমন।
ওয়েব ডেস্ক, ১৫ অক্টোবর।। সুস্থ আছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। বাড়িতেই রয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন দিন ধরে শারীরিক কারণে নিজেকে সক্রিয় রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছেন বুদ্ধদেববাবু। হাঁটাচলাও বারণ। তবে নিয়ম করে আলিমুদ্দিনে যান। শুক্রবার রাজ্য পার্টি অফিসেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। বুদ্ধদেববাবুর নাক থেকে রক্ত বেরোচ্ছিল। দলের কর্মীরাই চিকিত্সককে খবর দেন। পরে হাজির হন তাঁর ব্যক্তিগত চিকিত্সক। হাসপাতালে ভর্তি করার তোড়জোর চলছিল। তবে বাধা দেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। বাড়িতেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের চিকিত্সা চলছে। তিনি আপাতত সুস্থ আছেন।
ওয়েব ডেস্ক, ১৫ অক্টোবর।। রবিবারই পঞ্জাবের গুরুদাসপুর লোকসভা কেন্দ্র হাতছাড়া হয়েছে বিজেপির। প্রায় দু'লক্ষ ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন গেরুয়া শিবিরের প্রার্থী। তবে পড়শি রাজ্য হিমাচল প্রদেশে ধাক্কা খেল কংগ্রেস। সে রাজ্যে কংগ্রেসি সরকারের গ্রামোয়ন্নয়নমন্ত্রী অনিল শর্মা দল ছাড়লেন। যোগ দিলেন বিজেপিতে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় যোগাযোগমন্ত্রী সুখরামের ছেলে অনিল শর্মা। রবিবার দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করে তিনি বলেন,"আমি মন্ত্রিসভা ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলাম। আমায় মান্ডি থেকে প্রার্থী করছে বিজেপি।" তাঁকে দলে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছিল না বলে অভিযোগ করেছেন অনিল। ১৯৬২ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত মান্ডি থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন সুখরাম। ১৯৯৩ সালে অনিল শর্মা ওই আসনটি জেতেন। আগামী ৯ নভেম্বর হিমাচল প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। সেরাজ্যে এখন ক্ষমতায় রয়েছে কংগ্রেস। সেখানেই কংগ্রেসের হেভিওয়েটকে দলে টেনে মোক্ষম আঘাত করল বিজেপি। হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বীরভদ্র সিংয়ের দাবি, অনিল শর্মা দলত্যাগে কোনও প্রভাব পড়বে না। অন্যদিকে লখনৌতে বিএসপি-র ৬ হেভিওয়েট নেতাকে দলে টেনেছে বিজেপি। উত্তর প্রদেশ বিজেপির সভাপতি মহেন্দ্রনাথ সিংয়ের উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছেন দীপক প্যাটেল, নীরজ মৌর্যরা।