খুনের মামলায় সুশীলের গ্রেফতারিতে ক্ষুব্ধ-বিরক্ত ক্রীড়া মহল, ৬ দিনের হেফাজত পেল পুলিশ
খুনের মামলায় সুশীলের গ্রেফতারিতে ক্ষুব্ধ-বিরক্ত ক্রীড়া মহল, ৬ দিনের হেফাজত পেল পুলিশ

ওয়েব ডেস্ক, ২৩ মে।। সাগর রানা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ধৃত সুশীল কুমারকে হেফাজতে চেয়ে দিল্লি পুলিশের অর্ধেক আবেদন মেনে নিল আদালত। অন্যদিকে অলিম্পিকে জোড়া পদকজয়ী সুশীলের এই পরিণতিতে হতাশ-বিরক্ত-ক্ষুব্ধ দেশের ক্রীড়া মহল। প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন রথী-মহারথীরা। এই ঘটনাকে ভারতীয় ক্রীড়াক্ষেত্রের অন্ধকারময় অধ্যায় হিসেবে গণ্য করা হয়েছে। ২৩ বছরের কুস্তিগীর সাগর রানা হত্যাকাণ্ডের অভিযুক্ত সন্দেহে গ্রেফতার হওয়া সুশীল কুমারকে ১২ দিনের জন্য হেফাজতে চেয়ে রোহিণী আদালতে আবেদন করেছিল দিল্লি পুলিশ। সেই আবেদনের বিরোধিতা করেছিলেন ধৃত কুস্তিগীরের আইনজীবী। দুই দিকের বক্তব্য শুনে প্রাথমিকভাবে মামলার রায়দান স্থগিত রেখেছিলেন বিচারক। পরে তিনি জানিয়ে দেন যে, ৬ দিনের জন্য সুশীলকে নিজেদের কাছে রাখতে পারবে পুলিশ। উল্লেখ্য, গ্রেফতারের পরপরই পুলিশি জেরায় সাগর রানা হত্যাকাণ্ডের বেশ কিছু তথ্য জানান অলিম্পিয়ান। রবিবার মেডিক্যাল টেস্টের পর সুশীলকে আদালতে তোলা হয়েছিল। বিশ্ব কুস্তি দিবসে সুশীল কুমারের এই পরিণতি মেনে নিতে পারছেন না দেশের ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা। ২০০৮ সালের বেজিং অলিম্পিকের কুস্তিতে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন সুশীল কুমার। একই ইভেন্টের বক্সিংয়ে দেশকে ব্রোঞ্জ এনে দেওয়া বিজেন্দ্র সিং-কে রবিবারের ঘটনা হতাশ করেছে। সুশীলের গ্রেফতারিকে ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রের অন্ধকারতম অধ্যায় হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন টেবিল টেনিস তারকা অচন্তা শরথ কমল। ভারতীয় হকি দলের প্রাক্তন অধিনায়ক অজিতপাল সিং খুনের মামলায় দেশের তারকা কুস্তিগীরের গ্রেফতারিকে লজ্জাকর ও দুর্ভাগ্যজনক বলে ব্যাখ্যা করেছেন। সুশীলের এই পরিণতিতে বিচলিত ভারতের ক্রিকেট মহলও।

গত ৪ মে দিল্লির ছত্রসল স্টেডিয়ামে প্রাক্তন জুনিয়র জাতীয় কুস্তি চ্যাম্পিয়ন ২৩ বছরের সাগর রানাকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছিল। ঘটনায় আহত হয়েছিলেন আরও দুই জন। যাঁদের বয়ান থেকে জানা গিয়েছিল যে ঘটনার সময় স্টেডিয়ামে ছিলেন সুশীল কুমার। গ্রেফতারির পর পুলিশি জেরায় সেকথা স্বীকারও করে নিয়েছেন দেশের প্রাক্তন অলিম্পিয়ান। সুশীলকে জেরা করে পুলিশ এও জানতে পারে যে শেষ ১৮ দিনে সাতটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল সীমানা পার করেন অভিযুক্তরা। উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, পাঞ্জাবে পৃথক সময় গা ঢাকা দিয়ে ছিলেন অলিম্পিকে দেশের মুখ উজ্জ্বল করা কুস্তিগীর। ইতিমধ্যে পুলিশকে বোকা বানাতে বারবার সুশীল নিজের সিম কার্ড পরিবর্তন করেছেন বলে জানা গিয়েছে। প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে পুলিশের সঙ্গে লুকোচুরি খেলার পর কুস্তিগীর সাগর রানা হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত সুশীল কুমারকে অবশেষে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ভারতের তারকা কুস্তিগীর এবং ঘটনার অন্যতম অভিযুক্ত তাঁর সহযোগী অজয় ওরফে সুনীলকে পশ্চিম দিল্লির মুন্দকা থেকে ধরেছেন তদন্তকারীরা। দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার পিএস কুশওয়াহা জানিয়েছেন, পাঞ্জাব থেকে মুন্দকা এলাকাতেই আত্মগোপন করেছিলেন সুশীল। গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের প্রেক্ষিতে পুলিশের বিশেষ দলের অভিযানে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুশওয়াহা।

আরো পড়ুন

FACEBOOK

Advertisement