৮ কোটি পরিযায়ীর জন্য দু'মাস বিনামুল্যে খাদ্যশস্য: জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী
৮ কোটি পরিযায়ীর জন্য দু'মাস বিনামুল্যে খাদ্যশস্য: জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী

ওয়েব ডেস্ক, ১৪ মে।। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক পাকেজের বিষয়ে দ্বিতীয় দফা বক্তব্য রাখছেন। NDTV-কে সূত্র জানাচ্ছে, এবারের বক্তব্যে পরিযায়ী ইস্যু, গ্রামীণ অর্থনীতি ও কৃষকদের পরিস্থিতি নিয়ে এদিন তিনি কথা বলতে পারবেন। বুধবার তিনি জানিয়েছিলেন, বেসরকারি ক্ষেত্রের কর্মীদের হাতে প্রাপ্য বেতনের পরিমাণ বাড়ানো এবং ৩ লক্ষ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক ঋণের কথা।

রইল দ্বিতীয় দিনে নির্মলা সীতারামনের ঘোষণার হাইলাইটস:

·         আজকের ঘোষণা ছোট ব্যবসায়ী, ছোট কৃষক, স্ব-রোজগেরে মানুষ, পরিযায়ী শ্রমিক, উপজাতির জন্য।

·         কৃষকদের জন্য আজ আমরা দু'টি সুবিধার কথা বলব। আরও রয়েছে, কিন্তু সেটা আগামী কয়েক দিনে দেওয়া হবে। আজ কেবল দুই। তাই দয়া করে মনে করবেন না যে কৃষকদের জন্য কেবল এই দু'টিই। আরও আসবে।

·         তিন কোটি প্রান্তিক কৃষকদের এরই মধ্যে ৪ লক্ষ কোটি টাকার সুবিধা দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া তাদের ৩ মাসের জন্য ইএমআই বন্ধ করা হয়েছে। গত ২ মাসে ২৫ লক্ষ নতুন কিষান কার্ড দেওয়া হয়েছে।

·         ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রথম ভাষণেই দরিদ্রদের সাহায্যের উপরে জোর দিয়েছিলেন। আমাদের ফোকাস রাখতে হবে দরিদ্র থেকে দরিদ্রতরদের জন্য। মোদি সরকার গরিবদের সাহায্য করেছে। ২২ কোটির বেশি দরিদ্রকে বিমা দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী চিরকালই গরিবদের জন্য ভেবেছেন। চমর দরিদ্রদের জন্য ভেবেছেন। 

·         গত দু'মাসে কোভিড-১৯ পর্বে আমরা শহরের গরিবদের জন্যও করেছি— কেন্দ্র ১১,০০০ কোটি টাকা দিয়েছে। ওই টাকা অস্থায়ী বাড়ি জানানোর জন্য কেন্দ্রের তরফে রাজ্যকে দেওয়া হয়েছে। সেই সব বাড়িতে তিন বেলার খাবার দেওয়া হয়েছে। আমি একথা আজ এই কারণে বলছি যে, আমরা আপনাদের জানাতে চাই, আমাদের সরকার পরিযায়ীদের বিষয়ে ভেবেছে। 

·         সারা দেশের ১২,০০০ স্ব-নির্ভর গোষ্ঠী ৩ কোটি মাস্ক ও ১,২০,০০০ লিটার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছে।

·         পরিযায়ীদের তাঁদের রাজ্যে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে উদ্বেগ রয়েছে। আমরা এরই মধ্যে দৈনিক রোজ ১৮২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০২ টাকা করেছি। এর আগেই এই ঘোষণা করা হয়েছে। যে পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরে গিয়েছে ১০০ দিনের কাজে নাম লিখিয়েছিলেন তাঁরা ক্ষতিপূরণ পাবেন। রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এব্যাপারে জানানো হয়েছে। 

·         বিনামূল্যে খাদ্যশস্য- বর্তমানে যা আছে তা থাকবে। এমনকী কার্ড না থাকলেও ৫ কেজি চাল, ৫ কেজি গম/ ৫ কেজি চানা পাওয়া যাবে। প্রায় ৮ কোটি মানুষ এতে উপকৃত হবেন। এই বাবদ সরকার ৩,৫০০ কোটি টাকা খরচ করেছে।

·         দেশজুড়ে হতে চলেছে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড'।

·         উপজাতিদের জন্য ৬০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। 

আরো পড়ুন

FACEBOOK

Advertisement